সৌন্দর্যের আড়ালে লুকিয়ে থাকা পৃথিবীর কয়েকটি বিষাক্ত প্রাণি

তালিকার শীর্ষে থাকা বিষাক্ত প্রাণির নাম বক্স জেলিফিশ। মূলত একে অস্ট্রেলিয়ান বক্স জেলিফিশ নামে ডাকা হলেও এশিয়া এবং অস্ট্রেলিয়ার আশেপাশেই সমুদ্রে এর অবাধ চলাচলের দেখা মিলে। মারাত্মক বিষের তালিকায়ও এটি প্রথম সারির দিকেই জায়গা দখল করে নিয়েছে

সৌন্দর্যের আড়ালে লুকিয়ে থাকা পৃথিবীর কয়েকটি বিষাক্ত প্রাণি

বিষ থেকে বিষাক্ত। নামের সাথেই অদ্ভুত চিনচিনে অনুভূতিরা ঘুরপাক খায়। অতি সাধারণ বিষ থেকেই যেখানে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখার কথা বলা হচ্ছে সেখানে প্রাণিজগতের কিছু প্রাণিরা আরামসে বিষ বহন করে ঘুরে বেড়াচ্ছে। সৃষ্টির রহস্য উদঘাটনে এ পর্যন্ত যত আবিষ্কার হয়েছে ঠিক ততটাই অবাক বিষ্ময়ের উদয় হয়েছে। আষ্টেপৃষ্টে রহস্য নিয়ে থাকা সে সকল বিষাক্ত প্রাণিদের পরিচয় নিয়ে আজকের লেখনী। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।

বক্স জেলিফিস!

বক্স জেলিফিশরা দেখতে দারুণ স্বচ্ছ ও তুলতুলে। আপনি বুঝতেই পারবেন না যে ঠিক ৬০ জন কে মেরে ফেলার মতো বিষ এর কোথায় লুকোনো! ©boxjellyfish.net
তালিকার শীর্ষে থাকা বিষাক্ত প্রাণির নাম বক্স জেলিফিশ। মূলত একে অস্ট্রেলিয়ান বক্স জেলিফিশ নামে ডাকা হলেও এশিয়া এবং অস্ট্রেলিয়ার আশেপাশেই সমুদ্রে এর অবাধ চলাচলের দেখা মিলে। মারাত্মক বিষের তালিকায়ও এটি প্রথম সারির দিকেই জায়গা দখল করে নিয়েছে। এর আকৃতি বিশাল হলেও স্বচ্ছতার জন্য হুট করেই পানি থেকে একে আলাদা করা কঠিন হয়ে যায়। কোনভাবে এর বিষ মানবশরীরে ঢুকে গেলে পরিণতি হয় ভয়ংকর। তীব্র ব্যথা, প্যারালাইসিস, ডেলিরিউম, শক, কার্ডিয়াক এরেস্টসহ মিনিটের মধ্যেই মৃত্যুও সুনিশ্চিতভাবে ডেকে আনতে পারে দারুণ দেখতে এই প্রাণিটি।
বক্স জেলিফিশ আক্রমণ করার পরবর্তী ধাপ! ©reddit.com
মজার কিন্তু ভয়ংকর তথ্য হচ্ছে, ৬০ জন প্রাপ্তবয়স্ককে ঠাণ্ডা মাথায় মেরে ফেলার মতো বিষও এই প্রাণির শরীরে মজুদ করা আছে।

ইনল্যান্ড তাইপান স্নেইক!

ইনল্যান্ড তাইপান, চোখের মায়ায় হারালে ভুল করবেন!  ©pinterest.com
তালিকার দ্বিতীয়তে থাকা বিষাক্ত প্রাণিটির নাম ইনল্যান্ড তাইপান। একটি সাপ। সাপ নিরীহ প্রাণি এবং দেখতে কিউট ভেবে যারা ‘অওওও কী কিউট’ ভেবে আদর করতে ছুটে যান, তাদের জন্য এই ইনল্যান্ড তাইপানের কিছু বিষয় না জানালেই নয়। একে ব্যাখ্যা করা হয় ‘ভয়ংকর বিষাক্ত সাপ’ হিসেবে। মানে এর পরিচয় এটাই। সাপটির বসবাস অস্ট্রেলিয়ায়। ইনল্যান্ড তাইপানের বিষে আছে নিউট্রক্সিন যা মাত্র ৪৫ মিনিটেই একজন পূর্ণবয়স্ক মানুষকে মেরে ফেলে।
ইনল্যান্ড তাইপানের আক্রমণের পরেও ভাগ্যক্রমে বেঁচে ফেরা মানুষ! ©dailymail.co.uk
আরেকটি মজার তথ্য দেই। এই সাপটির বিষের মাত্র ১ ফোটা ১০০ জন পর্যন্ত মানুষকে মেরে ফেলতে পারে!

ব্লু রিংড অক্টোপাস!

ব্লু রিংড অক্টোপাস! দারুণ না দেখতে? ©slate.com
বিষাক্ত প্রাণির তালিকার ৩ নম্বরে আলো করে থাকা প্রাণিটির নাম ব্লু রিংড অক্টোপাস। জাপান, ফিলিপাইনস ও অস্ট্রেলিয়ার সমুদ্রে বিচরণ করা ভয়ংকর সুন্দর দেখতে প্রাণিটির অভ্যাস এবং বিষ দুই-ই ভয়ংকর। তবে এর আকৃতি তুলনামূলক ছোটো। এই ধরুন, একটি গোল্ফবলের সমান। কিন্তু এর বিষ! আপনি ভাবতেই পারবেন না। মাত্র ১০ মিনিটেই শ্বাসযন্ত্রের কাজ থামিয়ে দিয়ে ৩০ মিনিটের মধ্যে সুন্দর করে মেরে দিতে সক্ষম। আবার ধরুন এর মাত্র এক কামড়ে প্রায় ২৬ জন পর্যন্ত মানুষ মারা যেতে পারে। আরও ভয়ংকর তথ্য হলো এই বিষের কোন প্রতিষেধক নেই!

ইরুকান্দিজ জেলিফিশ!

ইরুকান্দিজ জেলিফিশ; ভীষণ স্বচ্ছতার আবরণে মোড়া এক বিষের কারখানা! ©perthnow.com.au
দেখতে বড়োজোর একটা চিনাবাদাম কিংবা একজন মানুষের ফিঙ্গার ট্রিপের সমান অথচ তাতেই বিষাক্ত প্রাণির তালিকায় ৪ নাম্বারে নাম লিখিয়েছে প্রাণিটি।
একদমই ছোটো দেখতে হয় এরা ©abc.net.au
নাম ইরুকান্দিজ জেলিফিশ। বলা হয়ে থাকে, ইরুকান্দিজের দেওয়া ব্যথার চেয়ে মরফিন থেকে পাওয়া ব্যথাও কম ব্যথা দেয়। প্রতিষেধক না থাকার কারণে আপনাকেই এর থেকে দূরে থাকতে হবে। এদের আস্তানার ধারেকাছে যাওয়া একদমই উচিৎ হবে না কারণ এরা খুব ভালো সাতারু।

কোন স্নেইল!

কোন স্নেইল! ভয়ংকর রূপে মোড়া মৃত্যুর দূত! ©leisurepro.com

দেখতে এত সুন্দর যে আপনার একটু ছুঁয়ে দেখতে মন চাইবে। কিন্তু বিষাক্ত প্রাণির তালিকায় ৫ নাম্বারের পদটা অলঙ্কৃত করে থাকা প্রাণিটা এর রূপের চেয়েও ভয়ংকর। ভুল করেও এর কামড় খেয়ে থাকলে শরীর ধীরে ধীরে অবসন্ন হয়ে মৃত্যুর দিকে এগোয়। ভীষণ মন্থরগতির এ শামুকটির মধ্যে মজুদ থাকা বিষ ২৯ জন প্রাপ্তবয়স্ককে মেরে ফেলার জন্য যথেষ্ট।


This Bangla article is about some tremendous poisonous child (animal) of earth.
Reference:
আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...