নাসির হোসেন : অন্যের বউকে কি জেনেশুনেই বিয়ে করলেন? (ভিডিও)

সময়টা ২০১৬। সামনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। বাংলাদেশের স্কোয়াড ঘোষনা হয়ে গেছে, জায়গা পেয়েছেন নাসির। সে সময় বিসিবি সভাপতির একটা বক্তব্য

নাসির হোসেন : অন্যের বউকে কি জেনেশুনেই বিয়ে করলেন? (ভিডিও) 

 

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১। রাজধানীর একটি রেস্তোরাঁয় জাতীয় দলের অলরাউন্ডার নাসির হোসেন বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সারেন কনে তামিমা তাম্মি’র সাথে। এই খবর ছড়িয়ে যাওয়ার পরই বিতর্কের মুখে পড়েছেন নেতিবাচক খবরের নিয়মিত শিরোনাম হয়ে ওঠা নাসির। বলা হচ্ছে, কনে তামিমা তার আগের স্বামীকে ডিভোর্স না দিয়েই নাসিরকে বিয়ে করেছেন, তামিমার আট বছরের একটি মেয়ে সন্তানও আছে। প্রশ্ন হচ্ছে, নাসির এর কি অজানা ছিল এই ব্যাপারটি? নাকি বিতর্কের সমার্থক হয়ে ওঠা এই ক্রিকেটার জেনে শুনেই অন্যের বউকে বিয়ে করেছেন? জানতে হলে দেখতে হবে পুরো ভিডিওটি। 

 

শুরুতেই কয়েক বছর আগের সময়ে ঘুরে আসতে চাই। সময়টা ২০১৬। সামনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। বাংলাদেশের স্কোয়াড ঘোষনা হয়ে গেছে, জায়গা পেয়েছেন নাসির। সে সময় বিসিবি সভাপতির একটা বক্তব্য বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে নাসিরকে নিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি করে। বিসিবি সভাপতি নাকি নাসির প্রসঙ্গে বলেছেন, ১২টা মোবাইল ফোন সেট নিয়ে সে ঘোরে। আশির বেশি বান্ধবী তার। যদিও এই বক্তব্যের নির্ভরযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন রয়ে গেছে। 

নাসির-হোসেন-বিয়ে
নাসির বিয়ে করেছেন তামিমা তাম্মিকে © ফেসবুক

 

সম্ভবত সে-ই থেকে মাঠের বাহিরের নাসিরকে নিয়েও নানান সময়ে নানান মুখরোচক খবর আসতে থাকে। 

আমরা এর মধ্যে কয়েকটি প্রাসঙ্গিক খবরে আলেকপাত করতে চাই।  

 

মারিয়া মিম। শোবিজের আলোচিত মডেল ও অভিনেত্রী। স্বামী অভিনেতা সিদ্দিকের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর একাধিক ইস্যুতে গণমাধ্যমের শিরোনাম হয়েছেন তিনি। তবে সবচেয়ে আলোচিত ইস্যুটিতে জড়িয়েছিলেন বোধহয় নাসিরের সাথেই। খবর বেরিয়েছিল, নাসিরের সঙ্গে প্রেম ছিল মিমের। কেউ বলছেন, নাসিরের সাবেক প্রেমিকার তালিকায় ছিল মিমের নাম। এসব নিয়ে সাম্প্রতিক সময়েও বেশ বিব্রত পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছেন, সেটি তার ফেসবুক স্ট্যাটাসেই বুঝা গেছে।  

 

এবার আরেকজনের কথা বলি। হুমায়রা সুবাহ। 

বছর তিনেক আগে বিনোদন দুনিয়ার উঠতি এই নায়িকার সাথে নাসিরের প্রেমের খবর সংবাদমাধ্যমে আসে। ২০১৮ সালে সুবাহর কয়েকটি ভিডিও তুমুল আলোচনার জন্ম দিয়েছিলো। ভিডিওতে তিনি নাসিরের সঙ্গে নিজের সম্পর্কের ব্যাপারটি ফাঁস করেছিলেন। সেই ঘটনার পর ব্যাপক পরিচিতি পান সুবাহ। তাদের সম্পর্ক অবশ্য বেশিদিন এগোয় নি। পরের বছরের ডিসেম্বরে অনেকটা হটাত করেই নাসির বিয়ে করছেন- এমন একটি গুঞ্জন উঠে। সে খবর জানতে পেরে সুবাহ ফেসবুকে আবেগঘন স্ট্যাটাসও দিয়ে ছিলেন। বিয়ের খবরটি অবশ্য ভুয়া ছিল। 

 

এমন করেই নাসির নানান সময়ে প্রেম ও বিয়ে নিয়ে বার বার খবরের শিরোনাম হয়েছেন। সেই ধারাবাহিকতারই দেখা মিললো গেল সপ্তাহে, ভালোবাসা দিবসে। হটাত করেই বিয়ের আসরে দেখা গেল নাসিরকে, কনে তামিমা তাম্মি। কিন্তু এই বিয়ে নিয়ে কেন এত বিতর্ক?  

 

চলুন গেল বছরের একটি ঘটনায় ফিরি। গত সেপ্টেম্বরে এক নারীসহ ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করেন নাসির। ঘনিষ্ঠ সেই ছবি দেখে ভক্তকুলের কৌতূহলের শেষ ছিল না। কে এই নারী? তবে কি বিয়ে করে ফেলেছেন নাসির? এমন নানান প্রশ্ন ডালপালা মেলেছিল সে সময়। ছবিটি অবশ্য পোস্ট করার মিনিট দশেক পরই সরিয়ে ফেলেন নাসির। সে সময় নাসির সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন শীঘ্রই বিয়ে করছেন তিনি। তবে সেই মেয়েটির পরিচয় অজানাই থেকে গিয়েছিল। 

নাসির-হোসেন-বিয়ে
নাসির হোসেন স্ত্রী তামিমার আগের ঘরের স্বামী সন্তান

 

ফিরতে চাই ১৪ ফেব্রুয়ারিতে। উত্তরার একটি রেস্তোরাঁয় আবার দেখা গেল সেই মেয়েটিকে। এবার জানা গেল পরিচয়। নাম তার তামিমা তাম্মি। গেল সেপ্টেম্বরে এই তামিমার সাথেই ইন্সটাগ্রামে ছবি দিয়েছিলেন নাসির। তাহলে বিয়ের আয়োজন চলছিল তখন থেকেই? 

 

তামিমার সম্পর্কে কিছু তথ্য জানার চেষ্টা করা যাক। তামিমা পেশায় বিমানের একজন কেবিন ক্রু। তার বিরুদ্ধে বড় অভিযোগ, তিনি নাকি ১১ বছরের সংসার ফেলে গাঁটছড়া বেঁধেছেন নাসিরের সঙ্গে। এমনকি ডিভোর্সও দেননি পূর্বের স্বামীকে। সে ঘরে রয়েছে তার ৮ বছর বয়সী এক কন্যাও। এমন দাবি তামিমারই স্বামী রাকিব। এ ব্যাপারে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরিও করেছেন রাকিব। 

 

আরো পড়ুন : মুমিনুল হক : সাইকেল চালিয়ে উচ্চতা বাড়ানো থেকে টেস্ট স্পেশালিস্ট হয়ে ওঠা

 

রাকিব হাসান ও তামিমার কাবিননামায় দেখা যায় ২০১১ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি তিন লক্ষ টাকা দেনমোহরে তাদের বিয়ে হয়।তখন তিনি মাত্র এসএসসি পাস করেন। রাকিবের দাবি, গেল ১১ বছরে তার স্ত্রীর পড়াশোনা থেকে শুরু করে চাকুরি- সবক্ষেত্রেই তিনি সাহায্য করেছেন।

 

 চমকপ্রদ আরেক তথ্য হচ্ছে, রাকিবের সাথে সংসার চলাকালীনই তামিমা তৃতীয় আরেকজনের সাথে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন। ছয় মাস সংসার করার পর তিনি ফিরে আসেন। পরে রাকিবের সঙ্গে ক্ষমা চেয়ে পার পান। সেই ছেলের নাম অলক।

 

কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, নাসির কি জেনেশুনেই অন্যের স্ত্রীকে বিয়ে করলেন? 

 

নাসির হোসেনের একটি ফোন রেকর্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। যেখানে শোনা যায়, ফোন করে এক ব্যক্তিকে জিডি করার ব্যাপারটি ধামাচাপা দিতে বলছেন নাসির। সেখানেই তাকে বলতে শোনা যায়, তামিমার ব্যাপারে সব কিছু জেনে-শুনেই তিনি বিয়ে করেছেন। তামিমার বাচ্চা আছে, আগেও বয়ফ্রেন্ড ছিল, সবকিছুই তিনি জানেন বলে দাবি করেছেন।  

নাসির-হোসেন-বিয়ে
নাসির তামিমা দম্পতি

 

কিন্তু আগের স্বামীকে ডিভোর্স না দিয়ে নতুন করে বিয়ে করাটা কতটা ন্যায়সঙ্গত? বাংলাদেশের আইনই-বা কী বলছে? 

 

দেশের আইনে বলা আছে, স্বামী বা স্ত্রী বর্তমান থাকা অবস্থায় পুনরায় বিয়ে করা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এবং সেটি করা হলে তা সম্পূর্ণ বাতিল বলে গণ্য হবে। এই অপরাধ প্রমাণিত হলে, প্রতারণাকারী স্বামী বা স্ত্রী সাত বছর পর্যন্ত কারাদন্ড এবং অর্থদন্ডেও দন্ডিত হবে।  

 

এখন দেখার বিষয়, নাসির কেন্দ্রিক এই বিতর্কিত ইস্যু কোনদিকে আগায়?


আরো দেখুন : বাইশ গজের বাইরে ক্রিকেটারদের জীবন কেমন? 

 

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...